YouTube Earnings Deduction Issue Explained

0

আমরা ইউটিউব থেকে যে ডলার বা টাকা ইনকাম করি । তার সব টাকা কিন্তু আমাদের ব্যাংক একাউন্টে আসে না । সেখান থেকে কিছু ডলার বা টাকা কেটে নেয়া হয় । এটা কেন করা হয়?  অনেক মানুষ রয়েছে যারা ইউটিউবের Analytics-এ গিয়ে Estimate Revieneu দেখেন সেখানে অনেক সময় দেখবেন এক-দিন, দুই-দিন কিংবা তিন-দিন পর-পর ডলার বেড়ে যায় আবার কখনো কমে যায় ।

এই বিষয় টা নিয়ে অনেকেই একটু চিন্তিত হচ্ছে । আবার অনেকেই মনে করেন YouTube আমাদের টাকা কেটে নিয়ে আমাদের কে কম টাকা দিচ্ছে । মূলত এখানে কি হয় সেই বিষয় টা অনেকেই জানার জন্য আগ্রহী । আজকে আমরা এই বিষয় টা নিয়ে আলোচনা করব ইউটিউব কি আদৌ আপনার টাকা  কেটে নিচ্ছে, কি নিচ্ছে না? আর যদি নিয়ে থাকে সেটার কারন কি? আজকে এই বিষয় গুলো নিয়ে আপনাদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করব।

শুরুতেই বলি হ্যাঁ YouTube কিংবা Google আসলেই আপনার টাকা কেটে নেয় । মাঝে মধ্যে YouTube বা Google আপনার টাকা কেটে নেয়ার কিছু কারণ রয়েছে ।

প্রথম কারণঃ

ইনভেলিড ক্লিক অথবা মাল্টিপল ক্লিক (INVALID CLICKS/MULTIPLE CLICKS)

আপনার ভিডিও যখন Play হয় তখন সেখানে গুগল দ্বারা বিজ্ঞাপন দেখায়। সেই বিজ্ঞাপনে যদি একই ব্যক্তি  “MULTIPLE Times CLICKS করে একই IP Address থেকে, তাহলে সেগুলো কে বলে মাল্টিপল ক্লিক বা ইনভেলিড ক্লিক (INVALID CLICKS/MULTIPLE CLICKS) ।

উদাহরণ সরুপ, আপনার বিজ্ঞাপনে যদি একই IP Address থেকে তিনটি Click করা হয়,  তখন সেই তিনটি Click Amount আপনার Estimate Revenue তে জমা হয়। কিন্তু যখন ফাইনালি ১২-তারিখে  আপনার Estimate Earning finalize হয়ে এবং Google Adsense account -এ Transfer হয় তখন সেখান থেকে দুইটা Click বাদ দিয়ে দেওয়া হয়ে এবং একটা ক্লিকের টাকা আপনার এডসেন্স একাউন্টে জমা হয়। এই কারণে অনেকেরই ডলার কমে যায়। কারণ এরকম অনেকেই ভূলবশত আপনার বিজ্ঞাপনে Click করে, আবার অনেকে ইচ্ছাকৃত ভাবে Click করে। সুতরাং এই ক্লিক গুলো কাউন্ট হয় না।

দ্বিতীয় কারণঃ 

কপিরাইট ক্লেইম  (COPYRIGHT CLAIM)

ধরুন, আপনার একটা ভিডিও থেকে গত এক মাস ধরে খুব ভালোভাবে অনেক টাকা ইনকাম হলো। কিন্তু মাসের শেষে গিয়ে আপনার ওই ভিডিওতে “COPYRIGHT CLAIM আসলো। কারণ আপনি অন্যের Content আপনার ভিডিওতে ব্যবহার করেছেন। তখন আপনার ঐ ভিডিও থেকে যে ইনকাম হয়েছে সেগুলো YouTube কেটে নিয়ে যাবে। এ কারণে আপনার অনেক বড় একটা Income কমে যেতে পারে। এখানে “COPYRIGHT CLAIM” বলতে আমরা “Copyright strike” বুজাচ্ছি না। Copyright strike ছাড়াও Claim এসে ভিডিওর Monetization off হয়ে যেতে পারে।

কিন্তু অনেক সময় এমনও হয় যে, আপনার Monetization On আছে কিন্তু ভিডিওতে COPYRIGHT CLAIM এসে Dollar কমে গিয়েছে। এর কারন হচ্ছে আপনার কপি করা ভিডিওটার ইনকাম  শেয়ার হয়ে যাচ্ছে। এর মানে হচ্ছে আপনার চ্যানেলে ভিউ হবে কিন্তু ভিডিওতে যে ইনকাম হবে তার সব চলে যাবে ভিডিওর যে মুল মালিক তার কাছে। এরকম যদিও খুব সময় হয়। এটাকে বলা হয় Revenue Sharing “রেভিনিউ শেয়ারিং”।

ত্বিতীয় কারণঃ

ডলার কাটেই না

আপনার হয়তো YouTube Analytics থেকে Estimated Revenue কমে যাচ্ছে। একদিন দেখছেন আপনি 12-Dollar এর পরদিন দেখছেন 10-Dollar এর পরদিন দেখছেন 9-Dollar এর পরে 8-Dollar এভাবে দিন দিন কমে যাচ্ছে। এটা কেন হয়? 

এই জায়গাতে মূলত আপনার Dollar কাটা হচ্ছে না। আমরা একটা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য Income গুলো দেখি। যেমন: পেজের উপরে ডান পাশের কোনায় সময় দেয়া থাকে গত ২৮-দিনের কিংবা  লাস্ট ৭-দিনের। আমরা যখন গত ৭-দিনের ইনকাম দেখি। মনে করুন আপনি আজকে দেখলেন আপনার চ্যানেল থেকে গত ৭-দিনে 14-Dolllar ইনকাম হয়েছে। এখান থেকে একদিন যখন কমে যাবে তখন আর 14-Dollar থাকবে না, কারণ আপনার Analytics থেকে এক-দিনের ইনকাম হাইড হয়ে যাবে এবং পরের ১ এক দিনের ইনাকাম যোগ হয়ে যাবে।

এখানে Actually আপনার ইনকাম টা কেটে নেয় না। আপনার ইনকাম টা শুধু হাইড হয়ে যায়।

Analytics  থেকে যদি আপনি ৭-দিনের ইনকাম টা ২৮-দিন করে দেন সেক্ষেত্রে ওইখানে ২৮-দিনের সকল ইনকাম দেখাবে। Analytics থেকে যদি Life Time করে দেন তাহলে আপনার পুরো চ্যানেলের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত যত ইনকাম হয়েছে সেটা দেখাবে। এর মানে হচ্ছে আপনার ডলার এখান থেকে কাটছে না আপনি নির্দিষ্ট টাইম এর ইনকামটা দেখছেন।

এই ছিল আমাদের আজকের বিষয়, আশা করি এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনি উপকৃত হবেন। আপনার যদি কোন প্রশ্ন থাকে সেটা অবশ্যই কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে আমাদের জানাবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here